ক্যাটেগরি
< All Topics
Print

উ-কমার্স মোবাইল এ্যাপ থেকে কিভাবে প্রোডাক্ট পোস্ট করবেন?

যারা WooCommerce (উ-কমার্স) ব্যবহার করে নিজেদের স্টোর বানিয়েছেন তারা খুব সহজে WooCommerce মোবাইল এ্যাপ দিয়ে প্রোডাক্ট এ্যাড, রিমুভ, এডিট ও অর্ডার ম্যানেজমেন্ট করতে পারবেন। এজন্যে অবশ্যই আপনার স্টোরে WooCommerce কোম্পানী’র অফিসিয়াল প্লাগিন JetPack ইনস্টল থাকতে হবে এবং তা WordPress.com এর সাথে কানেক্ট থাকতে হবে।

যা কিছু প্রয়োজন হবে

  • ১) স্টোরে JetPack প্লাগিন ইনস্টল থাকতে হবে,
  • ২) WordPress.com-এ একটি একাউন্ট থাকা লাগবে,
  • ৩) JetPack প্লাগিন WordPress.com এর সাথে কানেক্ট থাকতে হবে,
  • ৪) ফোনে উ-কমার্স এ্যাপটি ইনস্টল করে WordPress.com এর একাউন্টটিতে লগিন করতে হবে

উপরের ৪টি ধাপ সম্পূর্ণ করলে আপনি মোবাইল ফোনে আপনার স্টোরটি দেখতে পাবেন। উল্লেখ যে, যারা আমাদের রেন্ট এ শপে সাইন আপ করেছেন তাদের প্রথম ৩টি ধাপ নিয়ে চিন্তার কোন কারন নেই, কারন এই ৩টি ধাপ আমরাই করে দিয়ে থাকি। আপনাকে শুধু আপনার ফোনে WooCommerce এ্যাপটি ইনস্টল করতে হবে। আইফোন ব্যবহারকারীগণ এ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন এই লিংক থেকে আর এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীগণ এই লিংক থেকে।

পরবর্তী করনীয়

চিত্র-১

উপরের চিত্র-১ অনুযায়ী প্রথমে WooCommerce এ্যাপটি ওপেন করে ‘Login with WordPress.com‘ (লগিন ইউথ ওয়ার্ডপ্রেস.কম) এ ট্যাপ করে ই-কমার্স হোস্ট থেকে আপনাকে সরবরাহকৃত WordPress.com এর ইউজারনেম ও পাশওয়ার্ড দিয়ে লগিন করুন। লগিন সাকসেসফুল হলে স্ক্রীণে আপনার স্টোরের নাম দেখতে পাবেন। এখন নিচের চিত্র-২ অনুযায়ী প্রথমে সবুজ বৃত্তের আইকনের ট্যাপ করার পর নীল বৃত্তের আইকনে ট্যাপ করতে হবে।

চিত্র-২

এরপর নিচের চিত্র-৩ অনুযায়ী নীল বৃত্ত দিয়ে দেখানো ‘Simple Product‘-এ ট্যাপ করতে হবে।

চিত্র-৩

এখন নিচের চিত্র-৪ অনুযায়ী ১ নাম্বারে পণ্যের একটি ছবি মিডিয়া লাইব্রেরী থেকে সিলেক্ট করতে হবে অথবা ফোন থেকে ‘আপলোড‘ করতে হবে, ২ নাম্বারে পণ্যটির ‘নাম‘ লিখতে হবে, ৩ নাম্বারে পণ্যটির বিবরণ/বৈশিষ্টসমূহ লিখে দিতে হবে, ৪ নাম্বারে পণ্যটির মূল্য নির্ধারণ করে দিতে হবে এবং ৫ নাম্বারে ট্যাপ করে পণ্যটি কোন ‘ক্যাটেগরি‘র অন্তর্ভূক্ত তা সিলেক্ট করে দিতে হবে।

চিত্র-৪

উপরের চিত্রের ৪ নাম্বারের ‘Add Price‘-এ ট্যাপ করার পরার নিচের চিত্র-৫ অনুযায়ী পণ্যটির মূল্য নির্ধারণ করে দিতে হবে। ‘Regular Price‘-এ পণ্যটি সাধারনত যে মূল্যে বিক্রয় করা হয় সে মূল্য আর পণ্যটিতে ডিসকাউন্ট বা ছাড় দিতে চাইলে ‘Sale Price‘-এ ছাড়কৃত মূল্য (Discounted price) উল্লেখ করে দিতে হবে। আর অফারটি ১ দিন বা ৭ দিনের জন্যে চালু রেখে বন্ধ করে দিতে চাইলে ‘লাল‘ তীর চিহ্নিত বাটনটি এনাবল করে অফার শুরু ও শেষের তারিখ সিলেক্ট করে দিতে হবে।

চিত্র-৫

আবার চিত্র-৪ এর ৫ নাম্বারের ‘ADD MORE DETAILS‘-এ ট্যাপ করার পর নিচের চিত্র-৬ অনুযায়ী পণ্যের ক্যাটেগরি এ্যাড করার জন্যে নীল বৃত্তের ‘Categories‘-এ ট্যাপ করতে হবে। আর পণ্যটিকে সহজে খুঁজে পাওয়ার জন্যে বিভিন্ন নামে যেমন রং, ধরন ইত্যাদি গুণবাচক নামে ‘ট্যাগ‘ করতে চাইলে হলুদ বৃত্তে ‘Tags‘-এ ট্যাপ করে তা উল্লেখ করে দিতে হবে, এবং পণ্যটির একটি সংক্ষিপ্ত পরিচয় যা সাধারণত প্রোডাক্ট ডিটেইলস পেজে পণ্যটির নামের ঠিক নিচেই প্রদর্শিত হয় তা দিতে চাইলে লাল বৃত্তের ‘Short Description‘-এ ট্যাপ করে লিখে দিতে হবে।

চিত্র-৬

উপরের চিত্র-৬ এর নীল বৃত্তের ‘Categories‘-এ ট্যাপ করার পর নিচের চিত্র-৭ অনুযায়ী পণ্যটির একটি অথবা একাধিক ক্যাটেগরি প্রযোজ্য হলে একাধিক ক্যাটেগরি সিলেক্ট করে দিতে হবে। উল্লেখ্য যে একই পণ্যের একাধিক ক্যাটেগরি হতে পারে যেমন একটি শার্ট ‘গার্মেন্টস‘ ক্যাটেগরিতে ও পড়ে আবার ‘পুরুষদের পোষাক‘ ক্যাটেগরিতেও পড়ে।

চিত্র-৭

সবশষে উপরের সবগুলো কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর চিত্র-৭ থেকে ব্যাকে যাওয়ার পর নিচের চিত্র-৮ এ দেখানো সবুজ বৃত্তের ‘PUBLISH‘ বাটনে ট্যাপ করলে পণ্যটি আপনার স্টোরে বিক্রয়ের জন্যে প্রদর্শিত হবে।

চিত্র-৮
Table of Contents
ecommerce apps
We use cookies to improve your experience on echost.net. By browsing this website, you agree with our cookies policy.